• Page Views 196

ইনডোর চিড়িয়াখানা : যেখানে বন্ধু বনে যায় সাপ কিংবা গিরগিটি!

জানার আছে অনেক কিছু আর অভিজ্ঞতার তো শেষ নেই। শীতকালীন দেশে যেখানে বরফের স্তূপে বাইরের সব আয়োজন বন্ধ থাকে, সেখানে আনন্দ ও শিক্ষার জন্য অভ্যন্তরীণ অনেক আয়োজন থাকে।

তেমনই এক আয়োজন অভ্যন্তরীণ চিড়িয়াখানা, ঘরের ভেতরে চিড়িয়াখানাও বলতে পারেন! জীবনে একেবারে ভিন্ন কিছু অভিজ্ঞতা দিতে আপনার অপেক্ষায় রয়েছে ‘লিটল রেইস রেপটাইল জু অ্যান্ড নেচার সেন্টার’।

চিড়িয়াখানা শব্দটি শুনলেই মনে হয় খোলামেলা পরিবেশ যেখানে বাঘ, সিংহ, হাতি, বানর ঘুরে বেড়াবে। আর আপনি দূর থেকে দেখবেন ওদের মজার কিংবা হিংস্র যত কর্মকাণ্ড। কিন্তু এই চিড়িয়াখানার বিষয়টি একেবারেই ভিন্ন। নিজের মতো করে নিজের অভিজ্ঞতার কথা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করছি। কানাডার ওটোয়ার হ্যামিল্টনে রয়েছে এই চিড়িয়াখানাটি। আমাদের বাসা থেকে গাড়ি করে যেতে লাগে মাত্র তিন মিনিট। একেবারে ছিমছাম পরিবেশ। বাইরে থেকে দেখলে বোঝার উপায় নেই ভেতরে আপনার জন্য কী অপেক্ষা করছে! দরজা গলে ভেতরে যেতেই দেখা যায় নানা রকমের প্রাণীর ছবিতে দেয়াল পরিপূর্ণ।

প্রাণীদের ছবির জাদুঘর মনে করে হতাশ হবেন না। নাকে যে গন্ধ আসবে তাতেই বুঝতে পারবেন এইখানে জীবন্ত পশু-পাখি আছে। কিন্তু মজার বিষয় কিছুই দেখা যাচ্ছে না। একটু এগোতেই একজন সহযোগী আপনাকে অভ্যর্থনা জানাবে আর দিকনির্দেশনা দেবে কোন দিকে যেতে হবে আর কীভাবে যেতে হবে। তার নির্দেশনা জেনে-বুঝে শুরু করলাম ঘরের মধ্যে এক রোমাঞ্চকর অভিযান।

কেবল দেখা বা স্পর্শের অভিজ্ঞতাই নয়, সবাই জানতেও আসেন

মজার মজার সব তথ্য দিয়ে ঘিরে রাখা এক একটি ছোট্ট ঘরে আছে বিচিত্র সব প্রাণী। একই প্রাণী কত প্রজাতির হতে পারে এইখানে না গেলে হয়তো দেখাই হতো না। আমার ছেলেটা ভীষণ উচ্ছ্বসিত। আবার একইসাথে একটু একটু ভয়ও পাচ্ছে। কিন্তু ওর উচ্ছ্বাসের মাঝে ভয়টা চাপা পড়ে গেছে। এখানে আরো অনেকে তাদের বাচ্চাদের নিয়ে আসেন। মূলত প্রকৃতির সঙ্গে আধুনিক জীবনের যে বিস্তর ফারাক তা ঘুঁচিয়ে দেবে এই আয়োজন। বাচ্চারা যে প্রাণীগুলোকে ভয়ংকর জেনে বড় হচ্ছে, এখানে পা ফেললে সেই প্রাণীগুলোর প্রতি ভালোবাসা নিয়ে বাড়ি ফিরবে। একেবারে কাছ থেকে বিচিত্র সব প্রাণী দেখতে ও এদের সম্পর্কে জানতে পারছে মানুষ।

ঘুরে ঘুরে অনেক রকমের ব্যাঙ, সাপ, গিরগিটি, কুমির, বানর, ক্যাঙ্গারু, পাখি, খরগোশ এবং আরো অনেক অনেক প্রাণী দেখা হলো। মনে হলো সব কিছু দেখা বুঝি শেষ। কিন্তু না, আমাদের জন্য অপেক্ষা করছিল অন্যরকম এক অভিজ্ঞতা! যারা দেখতে এসেছেন তাদের সবাইকে একটি ঘরে যেতে বলা হলো। আমরা সবাই গেলাম, ওখানে একজন মাঝবয়সী ভদ্রলোক দাঁড়িয়ে আছেন। সবার উদ্দেশে কিছু বলবেন। তারপর শুরু করলেন কোন প্রাণী কোথায় থেকে সংগ্রহ করা হয়েছিল, কিভাবে সংরক্ষণ করা হয়, কেমন এদের আচরণ, কার কী খাবার, ইত্যাদি ইত্যাদি। কিছুটা বিরক্তির মাঝে যখন অজগর কিভাবে একটি ছাগল খেয়ে ফেলার গল্প শুনলাম, তখন চমকে উঠলাম। এরপর জীবনের অন্যরকম এক অভিজ্ঞতার পালা!

প্রথমে চোখে মুখে আতঙ্ক থাকলেও ওর মতো বাচ্চারা প্রাণীগুলোকে সহজেই ভালোবাসতে শুরু করে

তিনি একটি একটি করে প্রাণী ধরে নিয়ে আসলেন সবার মাঝে। ওদের সম্পর্কে আরো বিস্তারিত বলতে লাগলেন। আমরা সবাই মন্ত্রমুগ্ধের মতো শুনতে থাকলাম। সবাই প্রাণীগুলোকে ধরেও দেখছিল। যেকোনো মানুষের জন্যে এটা এক নতুন অভিজ্ঞতা। এত কাছ থেকে এত বড় বড় সরীসৃপ দেখার আর ধরার অভিজ্ঞতা ক’জনের হয়! যতই দেখছি আর স্পর্শ করছি তখন মনে হচ্ছিল সৃষ্টির কত রূপ আর ভিন্নতা, সত্যিই অবাক হবার মতো। যাই হোক, অভিযান শেষ হবার পালা। কিন্তু না, আসল অভিজ্ঞতা যে আরো বাকি বুঝতেই পারিনি। পৃথিবীর সব প্রাণীর মধ্যে সাপ আমার কাছে সবচেয়ে ভয়ংকর। এটা অনেকের কাছেই অবশ্য দুঃস্বপ্নের মতো। ওই ভদ্রলোক ১০ ফুট লম্বা একটি অজগর সাপ যখন নিয়ে আসলেন, আমার মতো অনেকেই ঘর থেকে দৌড়ে পালালেন। কিন্তু মজার বিষয় হলো আমার ছেলে আর বউ তখনো ওখানে। ছেলের ওখানে আরেক বাচ্চার সাথে বন্ধুত্ব। দুজনই দূর থেকে সাপ দেখছে। আমি ভাবলাম এত মানুষ এত কাছ থেকে দেখছে আমিও সাহস করে একবার যাই, আবার সেই ঘরে ঢুকলাম, একটু একটু করে কাছে গেলাম, সাপ স্পর্শ করলাম! এ এক অন্যরকম অভিজ্ঞতা, ভয় আর জানার এক অতুলনীয় মিশেল।

সবকিছু শেষ করে যখন বের হচ্ছিলাম তখন মনে হচ্ছিল টিকেট এর দাম খুব বেশি হয়নি। এই ধরনের আয়োজন আসলে ছোট বাচ্চাদের বিভিন্ন প্রাণী সম্পর্কে জানবার জন্য। যারা কানাডাতে আছেন তারা তো বটেই, ভ্রমণের নেশা যাদের রক্তে মিশে রয়েছে তারাও সুযোগ পেলে অবশ্যই এই অভ্যন্তরীণ চিড়িয়াখানায় এসে জীবনের এক ভিন্ন স্বাদ নিতে পারেন। এ স্বল্প পরিসরের আয়োজনটা আসলে মানুষকে পরিবেশ ও প্রাণীদের সম্পর্কে শিক্ষা প্রদান করছে। সেই সঙ্গে ভিন্ন অভিজ্ঞতার গল্পটা তো আছেই।

লেখক : মাইনুল বাশার, কানাডা

সূত্র:কালের কণ্ঠ

Share

দুবাই মিরাকল গার্ডেন : রাজ্যটা শুধুই ফুলের!

Next Story »

প্রাচীন শহরে বিস্ময়কর স্থাপত্যশৈলী ‘পেত্রা’

Leave a comment

LifeStyle

  • ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কাঁচামরিচ!

    3 months ago

    রান্নাঘরের অন্যতম প্রয়োজনীয় একটি উপাদান হলো কাঁচামরিচ। রান্নায় বা সালাদে তো বটেই, কেউ কেউ ভাতের সঙ্গে আস্ত কাঁচামরিচ খেতেও পছন্দ করেন। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে ...

    Read More
  • নিম পাতার গুণাগুণ

    3 months ago

    নিমগাছের পাতা, তেল ও কাণ্ডসহ নানা অংশ চিকিৎসা কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। নানা রোগের উপশমের অদ্ভুত ক্ষমতা রয়েছে এ গাছের। এ লেখায় থাকছে তেমনই কিছু ব্যবহার। ম্যালেরিয়া ...

    Read More
  • ডায়েটের কিছু ভুল

    3 months ago

    আজকাল মোটা হওয়া যেন কারোই পছন্দ না। কিন্তু ডায়েট করেও কাঙ্ক্ষিত ফল পাচ্ছেন না অনেকেই। কারণ, ডায়েটের সময় আমরা এমন কিছু ভুল করি যেগুলোর জন্য মেদ কমাতো ...

    Read More
  • পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস

    3 months ago

    আনারস শুধু সুস্বাদের জন্যই নয়, স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী। রসালো এ ফল জুস তৈরি করেও খাওয়া যায়। সারাদিন রোজা রেখে সুস্থ থাকতে অসংখ্য পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস যেমন ...

    Read More
  • অ্যাসিডিটিতে এখন যেমন খাবার…

    3 months ago

    রোজার মাসে সবাই যেন খাবারের প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে। সারা দিন না খাওয়ার অভাবটুকু ইফতারে পুষিয়ে নেওয়ার জন্য কি এই প্রতিযোগিতা? কে কত খেতে বা রান্না করতে পারে। ...

    Read More
  • ইফতারে স্বাস্থ্যকর ফল পেয়ারা

    3 months ago

    প্রতিদিনের ইফতারে ভাজাপোড়া কম খেয়ে বিভিন্ন ফল খাওয়া উত্তম বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই আপনার ইফতারে থাকতে পারে অতি পরিচিত এই ফলটি। প্রতিদিন মাত্র ১টি পেয়ারা আপনার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় লেবুর শরবত

    3 months ago

    গরমে যখন তীব্র দাবদাহে ক্লান্ত, ঠিক তখনই ইফতারে এক গ্লাস লেবুর শরবত হলে প্রাণটা জুরিয়ে যায়। শুধু শরবত হিসেবেই নয়, ওজন কমাতেও অনেকেই লেবুর শরবত খান। কিন্তু ...

    Read More
  • অ্যালার্জি ও সর্দি হয় যে কারণে

    3 months ago

    সাধারণত যারা বেশি পরিমাণে ঘরের বাইরে থাকেন তাদের মধ্যে সর্দি বা এলার্জির পরিমাণ বেশি লক্ষ্য করা যায়। তবে ঘরের ভেতরে অনেক বস্তু রয়েছে যেগুলো কারো মধ্যে এলার্জি ...

    Read More
  • প্রতিদিন কাঁচা পেঁয়াজ খেলে কি উপকার হয়?

    3 months ago

    ‘যত কাঁদবেন, তত হাসবেন’- পেঁয়াজের ক্ষেত্রে এই কথাটা দারুণভাবে কার্যকরী। কারণ এই সবজি কাটতে গিয়ে চোখ ফুলিয়ে কাঁদতে হয় ঠিকই। কিন্তু এই প্রাকৃতিক উপাদানটি শরীরেরও কম উপকার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় হলুদ

    3 months ago

    রান্নাে মশলা হিসেবে অতি পরিচিত হলুদ। ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ভিটামিন কে, ক্যালসিয়াম, কপার, আয়রনের পাশাপাশি এতে আছে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেণ্ট, অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিকারসিনোজেনিক, অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ...

    Read More
  • Read

    More