উচ্চ রক্তচাপ থেকে স্ট্রোক হতে পারে

স্ট্রোক হার্ট অ্যাটাক, হৃদনিষ্ক্রিয়া ও কিডনি রোগের একটি মূল কারণ হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে উচ্চ রক্তচাপ। আমাদের স্বাভাবিক রক্তচাপ থাকা উচিত ১২০/৮০ এর নিচে এবং অনেক লোক এর নিচে রক্তচাপকে নামাতে সক্ষম হননি। রক্তচাপের অসংখ্য ওষুধ ইতিমধ্যে উদ্ভাবিত হয়েছে। তবুও অনেক লোক রয়েছেন ঝুঁকির মধ্যে। যারা রক্তচাপ বিশেষজ্ঞ তারা বলেন, উচ্চ রক্তচাপ অনেকটাই প্রতিরোধ যোগ্য।
l উচ্চ রক্তচাপ রোগীদের একটি তাত্পর্যপূর্ণ অংশ জানেনই না যে তাদের উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। কারণ এদের মধ্যে অনেকেই কখনই ডাক্তারের কাছে যান না চেক আপের জন্য।
lবাকি যে অংশ তাদের অবস্থা সম্বন্ধে অবহিত অনেকেই মনে করেন না এটি গুরুত্বর একটি রোগ। সেজন্য চিকিত্সাও নেন না, ডাক্তার বললেও একে অবহেলা করেন।
lঅনেকে জীবন যাপনের বিধীতে তেমন কোন পরিবর্তন আনেন না। যেমন স্থূল শরীরের দিকে নজর দেন না, ব্যায়াম করেন না, লবণ খেয়ে চলেন বেশি বেশি, তখন উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ দুঃসাধ্য হয়ে দাঁড়ায়। আমেরিকার উইল কর্নেল মেডিকেল কলেজের ক্লিনিক্যাল মেডিসিনের অধ্যাপক এবং উচ্চ রক্তচাপ বিশেষজ্ঞ ডা:স্যামুয়েল জে ম্যান আরেকটি সমস্যার কথা উল্লেখ করেছেন, উচ্চ রক্তচাপ রোগী যাদের চিকিৎসা হচ্ছে এদের ৭১ শতাংশ নিচ্ছেন ভূল ওষুধ অথবা সঠিক ওষুধ নিচ্ছেন ভূল মাত্রায়।
ডা. ম্যান বলেন, প্রতিটি রোগীর রক্তচাপ সমস্যার অন্তনিহিত কারণ ও ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বা যে জন্য রোগী চিকিৎসা ছেড়ে দেন, সে সব বিষয় বিবেচনা করা উচিত। তিনি দেখেছেন যখন ব্যক্তি বিশেষে রোগীর চিকিত্সা যখন লাগসই করা হয়, উপযোগী করা হয় তখন রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ অনেক সহজ হয়ে যায়। আর একার্যটি করা যায় সামান্য পাশ্বপ্রতিক্রিয়া করে এবং সাশ্রয়ী মূল্যে। বেশিরভাগ রোগীর জন্যই নতুন ওষুধের প্রয়োজন পড়েনা। যা প্রয়োজন তাহলো প্রাপ্তিসাধ্য ওষুধের সঠিক ব্যবহার।
অনেক সময় সাধারণ চিকিৎসা করা রক্তচাপের ওষুধগুলোর মধ্যে কোনটি সে রোগীটির জন্য উপযোগী হবে, এরজন্য সূক্ষ্ম বিচার বিবেচনার ব্যাপারটি রয়েছে এর প্রতি মনোযোগী হন না। রোগীর পর রোগীকে একই ওষুধ পরপর প্রয়োগ করাতে কাজের কাজ হয়না। রোগী বিশেষে শ্রেষ্ঠ চিকিত্সাটি বেছে নেবার যে কৌশলটি তাহলো রোগীর উচ্চ রক্তচাপের অন্তনিহিত কারণ বা প্রকাশটি খুজে পাওয়া এবং সে হিসাবে চিকিত্সা দেওয়া।
lলবণ-সংবেদী উচ্চ রক্তচাপ, বয়স্ক লোক ও আফ্রিকান-আমেরিকানদের মধ্যে বেশি দেখা যায়।  মূত্রবর্ধক ওষুধ এবং ক্যালসিয়াম চ্যানেল ব্লকারস্ ওষুধ দিলে এদের ক্ষেত্রে বেশ কাজ হয়।
lকিডনি হরমোন রেনিনের সঙ্গে সম্প্রর্কিত উচ্চ রক্তচাপ এসিই ইনহিবিটারস ওষুধ এবং এণজিওটেনসিন রিস্পেটার ব্লকারস্ ওষুধ, সরাসরি বেনিন ইনবিহিটারস ও বিটাব্লকারস ওষুধে কাজ হয়।
lনিউরোজেনিক উচ্চ রক্তচাপ হলো সমবেদী স্নায়ুতন্ত্রের সঙ্গে সম্পর্কিত। এদের ক্ষেত্রে বিটাব্লকারস,আলফাব্লকারস, ক্লোনিডিনের মত ওষুধে কাজ হয়।
ডা. ম্যানের ভাষায়, নিউরোজেনিক উচ্চ রক্তচাপের মূলে রয়েছে অবদমিত মানসিক বিষন্নতা। তিনি দেখেছেন এদের মধ্যে জীবনের প্রথম দিকে থাকে আঘাত, অত্যাচার বা নির্যাতনের ইতিহাস। বাহিরে তারা শান্ত ও তৃপ্ত, দেখতে লাগলেও অন্তর্দহনের জ্বালা তাদের পুড়িয়ে মারে। ডা: ম্যান তেমন একজন রোগীর চিকিত্সার কথা বলেছেন, তার ২০ বছর বয়স থেকে ছিলো উচ্চ রক্তচাপ।
পারিবারিক চিকিৎসাকের পরামর্শে তিনটি ওষুধে বেশ ভালো চলছিলো চিকিৎসা। ৪০ বছর বয়সে মাঝে মাঝে রক্তচাপ চেক করে দেখা গেলো, উচ্চ রক্তচাপ বেশি হয় মাঝে মাঝে খুব বেশি। ব্যবস্থাপত্রের ওষুধগুলোর মাত্রা বাড়লেও কাজ হলো না। অনেক ভেবে চিন্তে ওষুধ দিলেন ডা: ম্যান। ওষুধের সংখ্যা কমলো। ব্যবস্থাপনা ভালো হলো। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও কম হলো। তবে বেশিরভাগ রোগীদের বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখানোর প্রয়োজন নেই। ইন্টানিস্ট বা পারিবারিক চিকিৎসকই যথেষ্ট। এক বা একাধিক ওষুধ নিম্ন মাত্রায় শুরু করলে, যেমন ডাইইউবেটিক স্বাভাবিক চাপ অর্জনের জন্য ওষুধ ও ওষুধের মাত্রার মধ্যে তারতম্য ক্রমে ক্রমে করা যেতে পারে। ১০-১৫ শতাংশ রোগী যাদেরকে তিন রকম ওষুধ দিয়েও নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। এদের জন্য বিশেষজ্ঞ পরামর্শ প্রয়োজন হয়।
উচ্চ রক্তচাপের পেছনে অনেক সময় থাকে অন্তনির্হিত অন্য কোনও রোগ যার চিকিত্সা প্রয়োজন হয়ে পড়ে। চার বা পাঁচটি ওষুধ লাগা উচিত নয়। যদি লাগে তাহলে তা প্রশ্নের বিষয়।
পরিচালক, ল্যাবরেটরী সার্ভিসেস
বারডেম, ঢাকা
Please follow and like us:
0
Share

নড়াইলে চিত্রা থিয়েটারের প্রতিষ্ঠাবাষির্কী উদযাপিত

Next Story »

ঘামের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে জেনে নিন

Leave a comment

LifeStyle

  • সঙ্গী স্বার্থপর! বুঝবেন যেভাবে

    11 hours ago

    স্বার্থপর মানুষের সঙ্গে আপনি জীবন কাটাচ্ছেন না তো? তবে জেনে নিন যেসব লক্ষণ দেখে বুঝবেন আপনার সঙ্গী কী স্বার্থপর কীনা- * আপনার সঙ্গী কি ...

    Read More
  • রক্তস্বল্পতা দূর করে যেসব খাবার

    11 hours ago

    মানব দেহে আয়রনের অভাব, ভিটামিন বি১২ এর অভাব, ফলিক অ্যাসিডের অভাব, অতিরিক্ত রক্তপাত ও পাকস্থলিতে ইনফেকশনের কারণে রক্তস্বল্পতা দেখা দিতে পারে। পাশাপাশি অতিরিক্ত ধূমপান, ...

    Read More
  • যেসব খাবারে দৈহিক শক্তি বাড়ে

    11 hours ago

    খাদ্যাভাসের মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে সম্প্রতি অধিকাংশ পুরুষই মিলনের আকাঙ্ক্ষা কম হওয়ার সমস্যায় ভুগছেন। সেক্ষেত্রে দৈহিক শক্তি বাড়াতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পন্ন ওষুধি কৌশল এবং ...

    Read More
  • দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি পেতে ব্যবহার করুন লেমন অয়েল

    11 hours ago

    সকালে লেবুর সঙ্গে গরম পানি মিশিয়ে খাচ্ছেন আবার কখনও সবুজ শাক, সবজি খেয়ে পেট ঠিক রাখার চেষ্টা করছেন। কিন্তু কোনও কিছুতেই কাজের কাজ হচ্ছে ...

    Read More
  • এলাচের উপকারিতা

    11 hours ago

    রান্নার স্বাদ ও গন্ধ বাড়াতে এলাচের জুড়ি নেই। তবে শুধু খাবারের স্বাদ বাড়ানো নয়, দিনে একটি মাত্র এলাচ আপনাকে নানা রোগব্যাধি থেকে মুক্তি পেতে ...

    Read More
  • অনাগত সন্তানের জন্য বাবাকেও ডায়েট করতে হবে!

    1 day ago

    অনাগত সন্তানের জন্য মায়েদের অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। কিন্তু বাবা হওয়ার জন্য পুরুষদের এত ঝামেলা সহ্য করতে হয় না তবে আমেরিকার সিনসিনাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা ...

    Read More
  • ডাবের পানিরও রয়েছে কয়েকটি ক্ষতিকর দিক

    1 day ago

    ডাবের পানির উপকারিতার কথা প্রায় সকলেই জানে। পেট গরমের মোক্ষম ওষুধ ডাবের পানি এটা নিয়মিত খেলে শরীরে পটাশিয়ামের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। বিশেষজ্ঞরা আবার ত্বক ...

    Read More
  • জানেন চুম্বনে কতটা ক্যালোরি শরীর থেকে বেরিয়ে যায়?

    1 day ago

    উত্তেজনা বাড়িয়ে তোলার প্রথম এবং প্রধান অবলম্বন চুম্বন। একটি গভীর চুম্বন দুটি মানুষের মধ্যে অনেক ধরনের অনুভূতির সৃষ্টি করে অপার সুখ ও অপরিসীম তৃপ্তি ...

    Read More
  • সকালে খালি পেটে পানি পানের উপকারিতা

    1 day ago

    প্রতিদিন পরিমিত পরিমাণে পানি পান করা খুবই জরুরি। তবে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর খালি পেটে এক গ্লাস পানি পান করা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ...

    Read More
  • এই তথ্য জানলে আপনি হয়তো আর কখনোই ব্রয়লার মুরগি খাবেন না!

    2 days ago

    এখন মাংস উৎপাদনের উদ্দেশ্যে লালন-পালন করা ব্রয়লার মুরগী সহ সব ধরনের পশুকেই নিয়মিত ভাবে প্রায় প্রতিদিনই অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ খাওয়ানো হয়। প্রতি বছর বিশ্বে এই ...

    Read More
  • Read

    More