তেলেই দূর হবে চুলের সব সমস্যা

অনেকের চুল অকালে ঝরে যায়/পেকে যায়। কারও আবার খুশকির সমস্যা। কারও চুল বেশি রুক্ষ কারও বা তৈলাক্ত। এর সব সমাধানই তেলের মাধ্যমে সম্ভব। যেমন নারকেল তেল। এতে ফ্যাটি অ্যাসিড থাকার কারণে কন্ডিশনারের কাজও করে। একই সঙ্গে চুল থাকে নরম। সামান্য গরম করে মাথার তালুতে ভাল করে মাসাজ করে নিন। আধঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

ক্যাস্টর অয়েল কাজ করে চুলের গোড়া মজবুত করতে। অল্প নারকেল তেল বা জলপাইয়ের তেল সঙ্গে এর কয়েক ফোঁটা মিশিয়ে স্ক্যাল্পে ও চুলে লাগিয়ে সারা রাত রেখে দিন। পরের দিন সকালে শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে এক বার ১-২ টেব্‌ল চামচ জলপাইয়ের তেল চুলে ভাল করে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রেখে দিন। পরে ঠাণ্ডা পানিতে চুল ধুয়ে নিলেই হল।

সরিষার তেলের সঙ্গে জবা ফুল, মেথি আর আমলকী ফুটিয়ে নিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। তার পর এই তেল চুলে নিয়মিত লাগালে চুল পড়া, কম বয়সে পেকে যাওয়ার হাত থেকে রেহাই পেতে পারেন। কারি পাতা চুলের গোড়া মজবুত করে। নারকেল তেলের সঙ্গে কারি পাতা আঁচে বসান। ফুটতে শুরু করলে পেঁয়াজ দিয়ে দিন। এই তেল-কারি পাতা-পেঁয়াজের মিশ্রণ ৪০ মিনিট টগবগ করে ফুটলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে ব্যবহার করুন।

খুশকির জন্য লেবুর রস এবং জল একসঙ্গে মিশিয়ে মাথার তালুতে লাগিয়ে রাখুন বেশ খানিকক্ষণ। তার পর গরম তেল দিয়ে মাসাজ করে শ্যাম্পু করে নিন। এতে খুশকিও উধাও হবে। নারিকেল তেলের সঙ্গে আমলকী, মেথি ভাল করে ফুটিয়ে চুলে লাগিয়ে নিন। এর পর বেশ খানিকক্ষণ গরম জলে ভেজানো তোয়ালে নিংড়ে চুল মুড়ে রাখুন। এ ভাবে ১৫-২০ মিনিট অন্তর দু’-তিন বার করলে চুল পড়া থেকে রেহাই পাবেন।

নারকেল তেল, একটা গোটা ডিম আর কয়েক ফোঁটা লেবুর রস একসঙ্গে ভাল করে ফেটিয়ে চুলে লাগিয়ে রাখুন। ৩০-৪৫ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন। এতে চুল নরম হবে।তিলের তেল এবং সরিষার খোল একসঙ্গে ফুটিয়ে নিন। উষ্ণ অবস্থায় তেল চুলে লাগান। নিয়মিত এই তেল ব্যবহার করলে চুলের সৌন্দর্য বাড়বে।

সূত্র:বিডি প্রতিদিন

Share

ওজন কমাবে ও কর্মক্ষমতা বাড়াবে ‘‌বুলেটপ্রুফ কফি’

Next Story »

স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক টি-ব্যাগের চা

Leave a comment

LifeStyle

  • ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কাঁচামরিচ!

    2 weeks ago

    রান্নাঘরের অন্যতম প্রয়োজনীয় একটি উপাদান হলো কাঁচামরিচ। রান্নায় বা সালাদে তো বটেই, কেউ কেউ ভাতের সঙ্গে আস্ত কাঁচামরিচ খেতেও পছন্দ করেন। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে ...

    Read More
  • নিম পাতার গুণাগুণ

    2 weeks ago

    নিমগাছের পাতা, তেল ও কাণ্ডসহ নানা অংশ চিকিৎসা কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। নানা রোগের উপশমের অদ্ভুত ক্ষমতা রয়েছে এ গাছের। এ লেখায় থাকছে তেমনই কিছু ব্যবহার। ম্যালেরিয়া ...

    Read More
  • ডায়েটের কিছু ভুল

    3 weeks ago

    আজকাল মোটা হওয়া যেন কারোই পছন্দ না। কিন্তু ডায়েট করেও কাঙ্ক্ষিত ফল পাচ্ছেন না অনেকেই। কারণ, ডায়েটের সময় আমরা এমন কিছু ভুল করি যেগুলোর জন্য মেদ কমাতো ...

    Read More
  • পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস

    3 weeks ago

    আনারস শুধু সুস্বাদের জন্যই নয়, স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী। রসালো এ ফল জুস তৈরি করেও খাওয়া যায়। সারাদিন রোজা রেখে সুস্থ থাকতে অসংখ্য পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস যেমন ...

    Read More
  • অ্যাসিডিটিতে এখন যেমন খাবার…

    3 weeks ago

    রোজার মাসে সবাই যেন খাবারের প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে। সারা দিন না খাওয়ার অভাবটুকু ইফতারে পুষিয়ে নেওয়ার জন্য কি এই প্রতিযোগিতা? কে কত খেতে বা রান্না করতে পারে। ...

    Read More
  • ইফতারে স্বাস্থ্যকর ফল পেয়ারা

    3 weeks ago

    প্রতিদিনের ইফতারে ভাজাপোড়া কম খেয়ে বিভিন্ন ফল খাওয়া উত্তম বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই আপনার ইফতারে থাকতে পারে অতি পরিচিত এই ফলটি। প্রতিদিন মাত্র ১টি পেয়ারা আপনার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় লেবুর শরবত

    3 weeks ago

    গরমে যখন তীব্র দাবদাহে ক্লান্ত, ঠিক তখনই ইফতারে এক গ্লাস লেবুর শরবত হলে প্রাণটা জুরিয়ে যায়। শুধু শরবত হিসেবেই নয়, ওজন কমাতেও অনেকেই লেবুর শরবত খান। কিন্তু ...

    Read More
  • অ্যালার্জি ও সর্দি হয় যে কারণে

    3 weeks ago

    সাধারণত যারা বেশি পরিমাণে ঘরের বাইরে থাকেন তাদের মধ্যে সর্দি বা এলার্জির পরিমাণ বেশি লক্ষ্য করা যায়। তবে ঘরের ভেতরে অনেক বস্তু রয়েছে যেগুলো কারো মধ্যে এলার্জি ...

    Read More
  • প্রতিদিন কাঁচা পেঁয়াজ খেলে কি উপকার হয়?

    4 weeks ago

    ‘যত কাঁদবেন, তত হাসবেন’- পেঁয়াজের ক্ষেত্রে এই কথাটা দারুণভাবে কার্যকরী। কারণ এই সবজি কাটতে গিয়ে চোখ ফুলিয়ে কাঁদতে হয় ঠিকই। কিন্তু এই প্রাকৃতিক উপাদানটি শরীরেরও কম উপকার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় হলুদ

    1 month ago

    রান্নাে মশলা হিসেবে অতি পরিচিত হলুদ। ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ভিটামিন কে, ক্যালসিয়াম, কপার, আয়রনের পাশাপাশি এতে আছে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেণ্ট, অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিকারসিনোজেনিক, অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ...

    Read More
  • Read

    More