• Page Views 289

হেলভেশিয়ার পথে প্রান্তরে

সুইজারল্যান্ডের আরেক নাম হেলভেশিয়া। লাতিন ভাষার প্রভাব এখানেও দেখা যায়। অফিশিয়ালি সুইজারল্যান্ডকে লাতিন ভাষায় ‘কনফয়েডেরাশিয়ো হেলভেশিয়া’ বলা হয়। ইউরোপের সেল্টিক উপজাতির একটি উপজাতিকে দ্য হেলভেশিয়ান বলা হতো। তারাই প্রধানত সুইজারল্যান্ডের আদি অধিবাসী। তবে সুইজারল্যান্ডে মূল বসতি শুরু হয় রোমান সাম্রাজ্যের পতনের শুরুর দিকে ৪০০ খ্রিষ্টাব্দে। ১২৯১ সালের পয়লা আগস্ট সুইজারল্যান্ড একটি রাষ্ট্রে রূপ লাভ করে এবং এই দিনকে সুইসরা জাতীয় দিবস হিসেবে উদ্‌যাপন করে। ১৬০০ শতাব্দী পর্যন্ত সুইজারল্যান্ডকে একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে গণ্য করা হতো না। ১৬৪৮ সালের ইউরোপিয়ান শান্তি চুক্তির মাধ্যমে সুইজারল্যান্ড অফিশিয়ালি একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। ১৮১৫ সালের ভিয়েনা কংগ্রেস অনুযায়ী সুইজারল্যান্ড একটি নিরপেক্ষ দেশ, যারা নিজ থেকে কোনো যুদ্ধে জড়ায় না এবং যুদ্ধের সময় বিশেষ কোনো পক্ষকে সমর্থনও করে না। কিন্তু তারা দুই পক্ষের কাছেই অস্ত্র বিক্রি করে। তবে সুইস সেনাদল ন্যাটোর শান্তিরক্ষা মিশনগুলোতে কাজ করে।

ফুরকা পাসে লেকের ধারে

এই সুইজারল্যান্ডের পথে প্রান্তরে ছড়িয়ে আছে ধরিত্রীর অপার সৌন্দর্য। যা চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। আবার চর্মচক্ষে দেখলেও স্বপ্ন মনে হয়। ৭ হাজার মিঠা পানির হ্রদসমৃদ্ধ সুইজারল্যান্ডকে লেক বা হ্রদের দেশও বলা যায়। এর মাঝে ১০৩টি হ্রদের আয়তন ৩০ হেক্টরের চেয়ে বেশি। লেকের স্বর্গ্যরাজ্যে পাহাড়-পর্বতেরও কমতি নেই। অন্য দেশেও পাহাড়-পর্বত-হ্রদ আছে। কিন্তু সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে পার্থক্য কোথায়? সুইসরা প্রকৃতির সঙ্গে তাদের যোগাযোগ ব্যবস্থাটাকে এমনভাবে সাজিয়েছে যে, একজন ভ্রমণকারী চাইলেই ট্রেনে চেপে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ১৫৮ মিটার উঁচু ইউনফ্রাউতে (কুমারী রমণী) পৌঁছে যেতে পারবেন।
ঋতুর পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রূপও বদলাতে থাকে। শীতে যে রমণী দুধসাদা তুষারের চাদর জড়িয়ে থাকে সেই আবার সবুজের মখমল জড়ায় গ্রীষ্মে। হেলভেশিয়ার এই রূপ যেন ঈশ্বরের নিজ হাতের পরম মমতায় গড়ে ওঠা। যেখানে আলো, বায়ু আর মেঘের সুষম বণ্টন সবুজকে করে তোলে আরও সবুজ আর সাদাকে করে তোলে দুধ সাধা। সৃষ্টিকর্তা ঠিক যেন একমুঠো রোদ্দুর, দুই চিমটি বায়ু আর আধা লিটার বৃষ্টিতে সাজিয়েছেন হেলভেশিয়ার প্রকৃতি। যা হ্রদ, পাহাড় আর নদীগুলোকে ভার্নিয়ার স্কেল দিয়ে মেপে সঠিক পুষ্টি দান করে আর প্রকৃতি ভরে ওঠে অপার স্বর্গীয় সৌন্দর্যে।

বাসেল বাংলা স্কুলের বাৎসরিক বনভোজনে অংশগ্রহণকারীদের একাংশ

এই অকৃত্রিম সৌন্দর্যমণ্ডিত দেশে যেসব বাংলাদেশিদের বাস তাদেরও আপ্রাণ চেষ্টা থাকে খুব কাছ থেকে প্রকৃতিকে অবলোকন করা। একা, পরিবার নিয়ে অথবা দল বেঁধে। বিভিন্ন শহরে বসবাসকারী বাংলাদেশি প্রবাসীরা বাৎসরিক বনভোজনের আয়োজন করে থাকেন দল বেঁধে সুইজারল্যান্ডের রূপ-লাবণ্য উপভোগ করার জন্য। এতে করে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে পারস্পরিক সম্প্রীতি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের মতো একটি ব্যয়বহুল দেশে অল্পখরচে প্রকৃতিকে উপভোগ করা যায়।
বাসেল ‘বাংলা স্কুলের’ উদ্যোগে বাৎসরিক বনভোজন আয়োজিত হয়ে গেল কিছুদিন আগে। সুইজারল্যান্ডে বনভোজনের জন্য সুনির্দিষ্ট কোনো গন্তব্যের প্রয়োজন হয় না। বাস নিয়ে যেকোনো একদিকে রওনা হয়ে গেলে পথিমধ্যে ৫-১০টা লেকের দেখা মিলবে। সেই সঙ্গে পাহাড় আর নীল আকাশের গভীর মিতালি। যেকোনো লেকের ধারে বসে বনভোজনের ভোজনটা সেরে নিলেই হয়ে গেল।

ফুরকা পাসে লেকের ধারে

তারপরও গন্তব্য ঠিক করা হলো বালিস ক্যান্টন। জার্মান ভাষায় বালিস লিখতে ইংরেজির ডব্লিউ ব্যবহার করা হয়। আমার মতো ২-৪ আনা জার্মান জ্ঞানের অধিকারীরা যাকে উচ্চারণ করে ওয়ালিস। ওয়ালিস হোক আর বালিসই হোক সেই ক্যান্টনে সুইজারল্যান্ডের সবচেয়ে ভয়ংকর রাস্তা বেয়ে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২ হাজার ১৫৮ মিটার উচ্চতায় ওঠা যায় গাড়ি নিয়ে। বালিসের সেই জায়গাকে বলা হয় ফুরকা পাস। বালিস প্রকাশ্য গন্তব্য হলেও ফুরকা পাস ছিল গোপন গন্তব্য। কেননা যাদের উচ্চতা ভীতি আছে তারা গন্তব্যের কথা জানলে হয়তো বেকে বসতে পারেন। তাই ফুরকা পাসের কথা গোপন রাখা হয়।

বাসেল বাংলা স্কুলের বাৎসরিক বনভোজনে অংশগ্রহণকারীদের একাংশ

০০৭ খ্যাত জেমস বন্ডের অন্যতম মুভি গোল্ড ফিঙ্গারের একটি বহুল আলোচিত দৃশ্যের শুটিং করা হয় এই ফুরকা পাসে ১৯৬৪ সালে। তখন থেকেই হয়তো ফুরকা পাস বিখ্যাত। পাহাড়ের চূড়া জলকণা ভর্তি মেঘে ঢাকা। সেখানে উঠে চক্ষু চড়কগাছ। ইয়া বড় এক হ্রদ। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২ হাজার ১০০ মিটার উচ্চতায় পাহাড়ের চূড়ায় হ্রদ। এখানকার পানির উৎস হলো বৃষ্টি ও গ্লেসিয়ার। এই ভয়ংকর সৌন্দর্য দেখে শরৎ চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বিখ্যাত উক্তি মনে পড়ে গেল—‘ঈশ্বর এই দুই চক্ষু যেমন দিয়েছিলেন, আজ তার সার্থক করিলেন’।
এত কিছুর পরেও হৃৎপিণ্ডে কেমন যেন শূন্যতা অনুভব হয়। মস্তিষ্কের নিউরনগুলো অবচেতন কোনো এক ছায়ায় স্তম্ভিত হয়ে পড়ে। সে ছায়া বাংলাদেশের নদ-নদী, পাহাড়-সাগর আর সবুজের ছায়া।
প্রকৃতির এ নিবিড় সান্নিধ্যে আসার পরও এই শূন্যতার নাম বুঝি মায়া। জন্মভূমি প্রতি মায়া।

হারুন-অর রশিদ: পিএইচডি গবেষক। বায়োজেন্ট্রাম, ইউনিভার্সিটি অব বাসেল, সুইজারল্যান্ড।

সূত্র: প্রথম আলো

Share

জাপানে বৃষ্টিভেজা বিকেলে চন্দ্রিমা উদ্যানের স্মৃতি

Next Story »

ইতালিতে ফেনী জেলা সমিতির বনভোজন

Leave a comment

LifeStyle

  • ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কাঁচামরিচ!

    4 months ago

    রান্নাঘরের অন্যতম প্রয়োজনীয় একটি উপাদান হলো কাঁচামরিচ। রান্নায় বা সালাদে তো বটেই, কেউ কেউ ভাতের সঙ্গে আস্ত কাঁচামরিচ খেতেও পছন্দ করেন। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে ...

    Read More
  • নিম পাতার গুণাগুণ

    4 months ago

    নিমগাছের পাতা, তেল ও কাণ্ডসহ নানা অংশ চিকিৎসা কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। নানা রোগের উপশমের অদ্ভুত ক্ষমতা রয়েছে এ গাছের। এ লেখায় থাকছে তেমনই কিছু ব্যবহার। ম্যালেরিয়া ...

    Read More
  • ডায়েটের কিছু ভুল

    4 months ago

    আজকাল মোটা হওয়া যেন কারোই পছন্দ না। কিন্তু ডায়েট করেও কাঙ্ক্ষিত ফল পাচ্ছেন না অনেকেই। কারণ, ডায়েটের সময় আমরা এমন কিছু ভুল করি যেগুলোর জন্য মেদ কমাতো ...

    Read More
  • পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস

    4 months ago

    আনারস শুধু সুস্বাদের জন্যই নয়, স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী। রসালো এ ফল জুস তৈরি করেও খাওয়া যায়। সারাদিন রোজা রেখে সুস্থ থাকতে অসংখ্য পুষ্টিগুণে ভরপুর আনারসের জুস যেমন ...

    Read More
  • অ্যাসিডিটিতে এখন যেমন খাবার…

    4 months ago

    রোজার মাসে সবাই যেন খাবারের প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে। সারা দিন না খাওয়ার অভাবটুকু ইফতারে পুষিয়ে নেওয়ার জন্য কি এই প্রতিযোগিতা? কে কত খেতে বা রান্না করতে পারে। ...

    Read More
  • ইফতারে স্বাস্থ্যকর ফল পেয়ারা

    4 months ago

    প্রতিদিনের ইফতারে ভাজাপোড়া কম খেয়ে বিভিন্ন ফল খাওয়া উত্তম বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই আপনার ইফতারে থাকতে পারে অতি পরিচিত এই ফলটি। প্রতিদিন মাত্র ১টি পেয়ারা আপনার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় লেবুর শরবত

    4 months ago

    গরমে যখন তীব্র দাবদাহে ক্লান্ত, ঠিক তখনই ইফতারে এক গ্লাস লেবুর শরবত হলে প্রাণটা জুরিয়ে যায়। শুধু শরবত হিসেবেই নয়, ওজন কমাতেও অনেকেই লেবুর শরবত খান। কিন্তু ...

    Read More
  • অ্যালার্জি ও সর্দি হয় যে কারণে

    4 months ago

    সাধারণত যারা বেশি পরিমাণে ঘরের বাইরে থাকেন তাদের মধ্যে সর্দি বা এলার্জির পরিমাণ বেশি লক্ষ্য করা যায়। তবে ঘরের ভেতরে অনেক বস্তু রয়েছে যেগুলো কারো মধ্যে এলার্জি ...

    Read More
  • প্রতিদিন কাঁচা পেঁয়াজ খেলে কি উপকার হয়?

    4 months ago

    ‘যত কাঁদবেন, তত হাসবেন’- পেঁয়াজের ক্ষেত্রে এই কথাটা দারুণভাবে কার্যকরী। কারণ এই সবজি কাটতে গিয়ে চোখ ফুলিয়ে কাঁদতে হয় ঠিকই। কিন্তু এই প্রাকৃতিক উপাদানটি শরীরেরও কম উপকার ...

    Read More
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় হলুদ

    4 months ago

    রান্নাে মশলা হিসেবে অতি পরিচিত হলুদ। ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ভিটামিন কে, ক্যালসিয়াম, কপার, আয়রনের পাশাপাশি এতে আছে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেণ্ট, অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিকারসিনোজেনিক, অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ...

    Read More
  • Read

    More